আশা

সর্বশেষ:

Latest news
২০২২ অর্ধ-বাষিক বিএ সমন্বয় সভা জেডিডি মহোদয় এবং ডিএ মহোদয় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস  ২০২২ উদযাপন উপলক্ষে আশা সিলেট জেলা ও ডিভিশন এবং এফএনবি-র পক্ষে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন আশা কর্তৃক যথাযোগ মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস উদযাপন-২০২১ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস  ২০২২ উদযাপন উপলক্ষে আশা সিলেট জেলা ও ডিভিশন এবং এফএনবি-র পক্ষে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন ২০২২ অর্ধ-বাষিক বিএ সভা,হোটেল ভিটানিয়া,আম্বরখানা বার্ষিক এবিএম সমন্বয় সভা-২০২২, আশা- সিলেট বিভাগীয় অফিস ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন ২০২২ বার্ষিক এবিএম মিটিং  ২০২২ বার্ষিক এবিএম মিটিং  ৯ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস-২০২১ Group Meeting আশা- সিলেট বিভাগীয় অফিস ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন জালালাবাদ ব্রাঞ্চে সদস্যকে মেডিকেল সহায়তা প্রদান আশা সাহেবের বাজার ব্রাঞ্চে প্রাথমিক শিক্ষা শক্তিশালীকরণ কর্মসূচি পরিচালনা

 নোটিশ

  •    Notice   জানুয়ারি ১৭, ২০২২
  •    Notice   জানুয়ারি ১৭, ২০২২
  •    Notice   জানুয়ারি ১৭, ২০২২

আশা তার জন্মলগ্ন অর্থাৎ ১৯৭৮ সাল থেকে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর দারিদ্র্য বিমোচনে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। আপামর জনসাধারণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও দারিদ্র্য দূরীকরণের ব্রত নিয়ে মানিকগঞ্জের শিবালয় থানার টেপরা গ্রামে আশা কার্যক্রম চালু করে। চালুকৃত এই কার্যক্রমের মূল উদ্দেশ্য ছিল সমাজের পিছিয়ে পড়া, শোষিত ও শ্রমজীবী মানুষকে সংঘবদ্ধ করে তাদের অধিকার সম্পর্কে সচেতন করা এবং তাদের অধিকার আদায়ে বিভিন্ন সামাজিক আন্দোলন কর্মসূচি বাস্তবায়নে কার্যকর ভূমিকা রাখা। নিরক্ষর ও পিছিয়ে পড়া মানুষের সাক্ষরতা নিশ্চিত করতে এবং কিছু স্বার্থান্বেষী মহলের শোষণ-বঞ্চনার নিগড় থেকে এই দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে মুক্ত করতে ‘আশা’ ১৯৮০ সালে সচেতনতামুলক শিক্ষা কার্যক্রম (ঊফঁপধঃরড়হ চৎড়মৎধস) শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় অর্থাৎ সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর চাহিদার কথা ভেবে ১৯৯১ সালে আশা তার কর্মপদ্ধতি ও কর্মকান্ডে আনে ব্যাপক পরিবর্তন। মূলত ১৯৯২ সাল থেকেই দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী ও আত্মনির্ভরশীল করতে ‘সঞ্চয় ও ঋণসেবা কার্যক্রম’ নামক কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়। এ কার্যক্রমের মাধ্যমে অর্জিত সেবামূল্য থেকে সংস্থাকে স্থিতিশীল ও টেকসই করার দূঢ় প্রত্যয় এবং অভিপ্রায় নিয়ে ‘আশা’ নতুন আঙ্গিকে কাজ শুরু করে।

আরো পড়ুন